শনি. জানু ২২, ২০২২

কাজী মহিউদ্দিন মঈনঃ
রামগঞ্জ লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি,
নাসা নিউজ২৪।

অসংস্কৃত এই রাস্তা।ছবি নাসা নিউজ২৪।

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ১ নং কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের হাজীর পাড়া কাজী বাড়ীর বিশেষ একটি অংশ(ছাড়া বাড়ীতে)৫০ বছর ধরে রাস্তা বিহীন মানবেতর জীবন যাপন করছে ১০ টি পরিবার।পুকুর পাড়, গোরস্থানের পাশে এলোমেলো চিকন একটা সরু পথ দিয়ে প্রতি নিয়ত যাতায়াত করছে ঐ ১০ টি পরিবারের লোকজন সহ এলাকার শত শত মানুষ।

উল্লেখিত বাড়ী থেকে নির্ভর যোগ্য রাস্তার দূরত্ব প্রায় ১৮০ মিঃ।প্রায় ৫০/৬০ পরিবারের বসবাস যোগ্য ঐ বাড়ীতে বর্তমানে ১০ পরিবারে শিশু, বৃদ্ধসহ প্রায় ৬০ জন লোকের বসবাস।সামান্য বৃষ্টি,বর্ষাকাল,বন্যায় খুবই কষ্টে চলাচল করতে হয় যা ভুক্ত ভোগীরাই বোঝে।এছাড়া মৃত ব্যক্তি দাফন,অসুস্থ ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেয়াসহ বিভিন্ন সমস্যায় পড়তে হয় ভুক্ত ভোগীদের।দেখার মত যেন কেউ নেই।বিগত কয়েক বছর ধরে সরকারি বেসকারি বিভিন্ন মহল উদ্যোগ নিলেও কিন্তু তা বাস্তবায়ন হয়নি।

সুত্রে জানা যায় কাজী বাড়ী এবং পাশের বাড়ী নেয়ামত উল্যাহ গাজী বাড়ীর কিছু দাবি দাওয়া মানা,না মানার কারনে রাস্তা হয়নি।গত প্রায় দুই(২)বছর আগে কাজী বাড়ীর লোকজনের আমন্ত্রনে গাজী বাড়ীর লোক জনের সমন্বয়ে ১ নং কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব নাছির উদ্দিন খাঁনের উপস্থিতিতে গাজী বাড়ী লোকদের দাবি অনুযায়ী পুকুরপাড় সংস্কার, রাস্তা নির্মাণের উপস্থিতিদের স্বাক্ষরিত একটি চুক্তি অনুমোদন হয়।

এখনো ঐ চুক্তি বাস্তবায়নের কোন কিছু না দেখতে পেরে এলাকাবাসী হতাশ।”নাসা নিউজ ২৪” প্রতিনিধিকে এলাকাবাসীর দায়িত্বশীল কয়েকজন জনিয়েছেন যে,শিঘ্রই কাজ শুরু করবেন বলে আশাবাদী।ব্যক্তি,সরকারি, বেসরকারি সকল মহলের সহযোগীতা কামনা করে দ্রুত রাস্তাটি নির্মাণ করার জোর দাবি জানান এলাকাবাসী।এতে কাজী বাড়ী গাজী বাড়ী সহ এলাকার সবার মধ্যে শান্তি শৃঙ্খলা বিরাজ করবে বলে মনে করেন এলাকার ছোট বড় সবাই।

বার্তা সংগ্রহকালে গোপন সুত্রে জানা যায়,এলাকার কিছু দুষ্টু,চাঁদাবাজ,সমাজে বিশৃঙ্খল সৃষ্টকারীর মতো একটি কুচক্র মহল রাস্তাটি নির্মাণে বাধা সৃষ্টি করছে।ভূক্ত ভোগীরা রামগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে এসব কুচক্র মহলকে চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিতে ও চেয়ারম্যান,এবং এম পি মহোদয় সহ সকল মহল এর কাছে যে কোন মূল্যে হোক রাস্তাটি নির্মাণের দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *