বৃহঃ. জানু ২৭, ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
নাসা নিউজ২৪,
ফরিদগঞ্জ চাঁদপুর।

সম্ভ্রম হারানো জান্নাতুল ফেরদৌস।

সামাজিক যোগাযোগে ভাইরাল হওয়া চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৭ নং পাইকপাড়া ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামের পাটওয়ারী বাড়ীর  দশম শ্রেণীর ধর্ষিত ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস এর হত দরিদ্র বাবা মোঃ মোজাম্মেল হক “নাসা নিউজ ২৪” এক সাক্ষাৎকারে তাঁর মেয়ের সাথে অনৈতিক কাজে যারা জড়িত তাঁদের সবার শাস্তি দাবি করেন।উল্লেখ্য জান্নাতুল ফেরদৌস পাশের গ্রামে অবস্থিত আষ্টা মহামায়া পাঠশালা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী।ঐ ছাত্রী  গত ৯ই জানুয়ারি ২০২২ইং রবিবার সকাল ৯.০০ঘটিকায় সহকারী স্কুল শিক্ষক শাহাদাৎ হোসেনের মুঠো ফোনের খবরে করোনা ভ্যাক্সিন টিকা দেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র নিয়ে স্কুলে যায়।স্কুল থেকে বেলা ১১.০০টায় বাড়ী ফেরার পথে বখাটে তিন (৩) যুবক সাইসাঙ্গা গ্রামের শিমুল (২২),আষ্টা গ্রামের ইজাজ(২৫),আষ্টা গ্রামের সাব্বির(২৩) এবং এলাকায় ঘৃনিত ব্যক্তি ভোটান গ্রামের প্রবাসী ফারুকের স্ত্রী লিপি বেগমের সহযোগীতায় তাঁর রাস্তার পাশে একা বাড়ী বিল্ডিংয়ে নিয়ে যায় এবং জোর পূর্বক তাঁকে ধর্ষন করে।

প্রবাসী ফারুকের স্ত্রী লিপি বেগম।

লোমহর্ষক এই ঘটনা বলতে গিয়ে ধর্ষিত জান্নাতুল ফেরদৌস কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে।সে তাঁদের শাস্তি দাবির পাশাপাশি তাঁর অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ এর জন্য সরকারসহ সব মহলের সহযোগীতা কামনা করে। অন্যদিকে তাঁর মা নূরজাহান বেগম বলেন আমি আমার মেয়েকে নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখেছি ওকে পড়ালেখা করিয়ে মানুষের মত মানুষ বানাতে চেয়েছি।আমার একমাত্র হিরার টুকরা মেয়ের সর্বনাশ কেন করলো আমি এর বিচার(ফাঁসি)চাই।যানা যায় ঘটনার ঐ দিনেই ধর্ষিত ছাত্রীর মা নূরজাহান বেগম বাদী হয়ে শিমুলকে ১ নং আসামী করে উল্লেখিত ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।এবং তাঁদেরকে আটক করে চাঁদপুর জেল হাজতে পাঠায় ফরিদগঞ্জ পুলিশ প্রশাসন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.