শনি. জানু ২২, ২০২২

অনলাইন ডেস্কঃ
নাসা নিউজ২৪।

মাউন্ট মঙ্গানুই জয় করে সিরিজে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। এখন ক্রাইস্ট চার্চে ড্র করতে পারলেই নিশ্চিত হয়ে যাবে সিরিজ। আরেকটি বিরল রেকর্ডের প্রতীক্ষায় মুমিনুলরা।ক্রাইস্ট চার্চের সবুজ উইকেটে স্বপ্নের লড়াইয়ে মাঠে নামছে টিম বাংলাদেশ।ম্যাচটি শুরু হবে কাল ভোর ৪টায়। সিরিজটি দুই টেস্টের হওয়ায় এখন হারানোর কিছু নেই টাইগারদের। কারণ এ ম্যাচে হারলেও সিরিজ ড্র হয়ে যাবে।তবে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে পাওয়া আত্ম বিশ্বাস নিয়ে ক্রাইস্ট চার্চে পা রেখেছেন ক্রিকেটাররা।পুরো ক্রিকেট বিশ্বই প্রশংসায় ভাসিয়ে দিচ্ছে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। তবে প্রথম টেস্টে জিতে এগিয়ে থাকলেও পা মাটিতেই রয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের।

ক্রাইস্ট চার্চেও তারা জয়ের জন্য বদ্ধ পরিকর।তবে এমন উইকেট ব্যাটস ম্যানদের জন্য কঠিনই বটে।রান তুলতে তাদের বেশ সংগ্রাম করতে হয়।এজন্য টেস্টে টস হয়ে উঠে অতি গুরুত্বপূর্ণ।প্রথম দিনই যদি ম্যাচ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়া যায় তাহলে বেশ ভালো।এজন্য ক্রাইস্ট চার্চ টেস্টে সবুজাভ উইকেট ও টস বিশাল ফ্যাক্টর হয়ে উঠে।সাকিবের মতে, টস জিতে ফিল্ডিং নিতে পারলে এবং বোলাররা শুরুর সুবিধা কাজে লাগাতে পারলে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।তার ভাষ্য দেখুন সবুজ উইকেট হলেও আমাদের জন্য যে এডভান্টেজটা থাকবে আমাদের যে তিনজন পেসার আছে, তারাও খুব ভালো বল করেছে।মিরাজও অসাধারণ বল করেছে। ওদের এটাও মাথায় রাখতে হবে যে, আমাদের বোলারদেরও ফেস করতে হবে।স্বাভাবিকভাবেই এরকম একটা ম্যাচ জেতার পর যেমন হয় যে সবার অনেক আত্মবিশ্বাস থাকে।

আমি আশা করবো ঐ আত্ম বিশ্বাস যেন কাজে লাগে।এমন না যে কাজে লাগবেই। তবে কাজে লাগলে খুব ভালো হবে।টসকে অতি গুরুত্বপূর্ণ মনে করে সাকিব যোগ করেছেন নতুন একটা ম্যাচ প্রথম দিনটা গুরুত্বপূর্ণ হবে। টস জেতাটা গুরুত্বপূর্ণ হবে।আমার মনে হয় টস জেতাটা এই টেস্টে সবচেয়ে বড় ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াবে।কারন নিউজিল্যান্ডে সব সময় দ্বিতীয় তৃতীয় দিনে উইকেটটা খুবই ভালো থাকে।টসটা জিতে যদি ফিল্ডিং নেওয়া যায় আমার কাছে মনে হয় সবচেয়ে ভালো হবে দলের জন্য।টস না জিতলেও হয়তো কঠিন হবে তবে আমার ধারণা প্রথম ম্যাচে যে আত্মবিশ্বাস পেয়েছে আমাদের দল সেটা তারা খুব ভালোভাবে কাজে লাগাতে পারবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *